হযরত আলীর কিছু বানী

পাথরের মত হয়োনা যে নিজে অন্যের পথ অবরোধ করে। পৃথিবীর বুকে শাসকের মধ্যে উল্লেখযোগ্য সফল শাসক হতে গেলে প্রথমেই ইসলাম যুগের চতুর্থ খলীফা হবেন হযরত আলী।

যার জীবনী হতে শিক্ষণীয় উপাদান রয়েছে অগণিত হযরত মহম্মদ মৃত্যুর প্রায় 25 বছর পূর্বে আরববিশ্ব মুখোমুখি হয় এক ভয়নক পরিস্থিতির। এই ভয়নক পরিস্থিতির আবার নতুন করে সুন্দরভাবে সাজিয়ে দিয়েছিলেন জনসাধারণকে দিয়েছিলেন এক নির্মল পদ ছায়া, তিনি হলেন হযরত আলী। 

সেই হযরত আলীর গুরুত্বপূর্ণ কিছু বক্তব্য এবং তার অনুপ্রেরণা মূলক কিছু বাণী আজ আপনাদের সামনে তুলে ধরবো। 

অসৎ লোকের ধন দৌলত পৃথিবীতে শ্রেষ্ঠ জীব এর বিপদ ওদের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। অনুশোচনা খারাপ কাজকে বিলুপ্ত করে আর অহংকার ভালো কাজ কে ধ্বংস করে। অভ্যাসকে জয় করাই পরম বিজয়ী । আত্মতুষ্টি নিশ্চিতভাবে নির্বুদ্ধিতার লক্ষণ অনার্থ কামনা নিজেই একটি ধ্বংসাত্মক সঙ্গী আর বধ অভ্যাস তৈরি করে একটি ভয়ঙ্কর শত্রু। 

সামনে কিভাবে তারিফ করতে হয় যে দুশমন সে জানে। শত্রুরা শত্রুতা করতে কৌশলে ব্যর্থ হলে তারপর বন্ধুত্ব করার পরামর্শ নেয়। রাজ্যের পতন হয় দেশ থেকে সুবিচার উঠে গেলে। কারণ সুবিচারে রাজ্য স্থায়ী হয়। মনে রেখো তোমার শত্রুর শত্রু তোমার বন্ধু। আর তোমার শত্রুর বন্ধু তোমার শত্রু।

খারাপ মানুষ অন্য দেশ সম্পর্কে ভাল মন্তব্য করতে পারে না। সর্বোচ্চ সে তাদেরকে ও নিজের মত মনে করে। বুদ্ধিমানেরা বিনয়ের দ্বারা সম্মান অর্জন করে আর বোকা লোকেরা বোকামির জন্য অপদস্থ হয়।

পূর্ণ অর্জন অপেক্ষা পাপ বর্জন করা শ্রেষ্ঠতর। নিচু লোকের প্রধান হাতিয়ার হচ্ছে খারাপ বাক্য ব্যবহার তাই নিজেকে অশ্লীলতার ব্যবহার থেকে যতটা সম্ভব দূরে রেখ । 

গোপন কথা যতক্ষণ তোমার কাছে রয়েছে ততক্ষণ তোমার বন্দি কিন্তু তোমার নিকট থেকে যদি তা ফাঁস হয়ে যায় তুমি তার বন্দী হয়ে গেলে । ছোটো পাপ কে ছোটো বলে অবহেলা করোনা। ছোটদের সমষ্টি বড়ো হয়। 

যা তুমি নিজে করো না বা করতে পারো না সেটা অন্যকে উপদেশ দিও না আগে তুমি নিজে করার চেষ্টা করো তারপর অন্যকে উপদেশ দেওয়ার চেষ্টা করো। যে নিজের মর্যাদা বোঝে না সে অন্যকে ও মর্যাদা দিতে পারেনা। যৌবনের অপচয় করা সময়ের ক্ষতি অবশ্যই তোমায় পূরণ করতে হবে। যদি তুমি সন্তোষজনক সমাপ্তির অনুসন্ধান করো।

তোমার যা ভাললাগে তাই তুমি জগৎকে দান কর বিনিময়ে তুমিও অনেক কিছুই জগতের কাছ থেকে লাভ করবে। দ্রুত ক্ষমা করে দেওয়া সম্মান বয়ে আনে আর দ্রুত প্রতিশোধ নেওয়া অসম্মান বয়ে আনে। দুনিয়াতে সবচেয়ে কঠিন কাজ হচ্ছে নিজেকে সংশোধন করা। আর সবচেয়ে সহজ হচ্ছে অন্যের সমালোচনা করা।

তুমি যদি কাউকে সাহায্য করে থাকো সেটা তুমি গোপন রাখো আর কেউ যদি তোমায় সাহায্য করে থাকে সেটি তুমি সবাইকে বলে দাও। মানুষের কিসের এত অহংকার? যার শুরু হয় এক ফোটা রক্ত বিন্দু দিয়ে আর শেষ হয় মৃত্তিকায়। 

আজ হযরত আলীর বিখ্যাত কিছু বক্তব্য আমি আপনাকে জানালাম। একটা কথা মনে রাখবেন যে ঘৃণা হিংসা এবং লোকের ক্ষতি করা এগুলো কখনোই ভালো কাজ নয়। যদি আপনি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চান এবং সাফল্যের দিকে এগোতে চান জীবনে সাফল্য পেতে চান তাহলে সবসময় মানুষের সাহায্য করুন । কোন মানুষ যদি আপনার কাছে সাহায্য চায় তাকে সেই সাহায্য টুকু দিন এটা আপনার কর্তব্য। যদি আপনি কখনো কারোর ভালো না করতে পারেন তাহলে আপনার জন্মটা মিথ্যা হয়ে যাবে। 


Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *