নিজেকে পরিবর্তন করুন

তোমার যা নেই তার পেছনে ছোঁটো কিন্তু যা আছে তা নিয়ে সময় নষ্ট করো না এটাই তোমার সবথেকে বড় প্রবলেম। 

যদি তুমি তোমার প্রবলেম টি ঠিক করতে চাও কাল থেকে তুমি সেটাই করো যেটা তোমার রয়েছে অর্থাৎ যেটা তোমার রয়েছে তুমি সেটার পেছনে ছোঁটো। তুমি অবশ্যই জিতবে তুমি অবশ্যই নিজেকে দাঁড় করাতে পারবে। 

নিজেকে কখনো ছোট করে দেখ না তাহলে তোমার নিজের আত্মাই মরে যাবে। আত্মা মরে গেলে মানুষ স্বপ্ন দেখতে ভুলে যায়, যদি তুমি বেঁচে থাকতে চাও যদি তুমি বড় হতে চাও তাহলে নিজেকে আগে বড় করতে শেখো। 

আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া হলো একটি ভার্চুয়াল দুনিয়া যেটা দেখে আমরা সবসময় সবকিছু বিশ্বাস করিনি। একটু ভেবে দেখো তো সেটা কি সত্যি, না সেটা সত্যি না সত্যি হল তুমি। সত্যি হল তোমার আশেপাশের লোকজন, কিন্তু যেটা তুমি দেখছো সেটা কখনো সত্যি নয়, ভুল ভ্রান্তি দিয়েই তো মানুষের জীবন। 

মানুষ যেখানে থাকবে ভুল অবশ্যই থাকবে। যদি তুমি সেই ভুলটাকে প্রাধান্য দাও সেই ভুলের পেছনে সময়টা কাটিয়ে দাও তাহলে বাকি জীবনে শান্তি নয় অশান্তি ডেকে আনবে।

তাই যদি শান্তি পেতে চাও তাহলে ভুল গুলোকে নয় তোমার ঠিক গুলিকে দেখো। রাস্তায় ঘেউ ঘেউ করা সমস্ত কুকুরের পেছনে যদি তুমি দৌড়াও তাহলেতো তুমি চলার গতি হারিয়ে ফেলবে, তোমার গন্তব্যে তুমি পৌঁছাতে পারবে কি ? 

একটা কথা মনে রাখবেন মাথা ছাড়া মানুষের দেহের কোন মূল্য নেই, আমাদের দেহটাকে চালাতে গেলে মাথা অবশ্যই। তেমনি ধৈর্য ছাড়া কোন সঠিক কাজ সম্পন্ন হয় না। যদি তুমি তোমার লক্ষ্যে পৌঁছাতে চাও তুমি তোমার জীবনে উন্নতি করতে চাও তাহলে তোমাকে ধৈর্য অবশ্যই রাখতে হবে যদি তুমি ধৈর্য না রাখতে পারো তাহলে কখনই সফল হবেনা তাই অবশ্যই ধৈর্য্য রাখা খুবই দরকার। 

যার কাছে তোমার কোন মূল্য নেই যে তোমাকে শুধুমাত্র ব্যবহার করে নিজের স্বার্থের জন্য যে তোমাকে প্রতি পদে পদে কষ্ট দেয় তার জন্য তুমি চোখের জল ফেলো না, তার জন্য দুঃখ করো না বরং তাকে ধন্যবাদ জানাও। কারণ সে তোমাকে যন্ত্রণা দেয় তোমাকে কষ্ট দেয় বলেই কিন্তু তুমি অন্য একটি পথ খোঁজার চেষ্টা করো। 

যদি তুমি সফল হতে চাও তোমার মনের মধ্যে আত্মবিশ্বাস কে ফিরিয়ে আনতে চাও তাহলে অন্যের থেকে বেশী জানার চেষ্টা করো অন্যের থেকে বেশী কাজ করার চেষ্টা করো কারণ একমাত্র তোমার পরিশ্রমই তোমাকে সফল করতে পারে। কিন্তু অন্যের থেকে কম আশা করার চেষ্টা করো। 

তুমিতো অযোগ্য নয় যারা অযোগ্য হয় তারা নিজেকে মাঝে মাঝে বড় করার চেষ্টা করে, তুমিতো তা নয় তুমি একজন সঠিক ব্যক্তি, তুমি একজন প্রত্যাশী ব্যক্তি যে প্রকৃত প্রত্যাশা পেতে চায়, যে প্রকৃত জয়ী হতে চায়। যদি তুমি সবসময় প্রত্যাশা করো তাহলে তোমার সকল প্রত্যাশা হতাশায় পরিণত হবে। প্রত্যাশা করার আগে নিজের যোগ্যতাকে বিচার করে দেখো। 

আর সেই যোগ্যতা অনুযায়ী প্রত্যাশা করো কারণ কখনোই অতিরিক্ত চাহিদা ভালো না তোমার যা যোগ্যতা নেই তুমি সেটি নিয়ে আশা করোনা তোমার যতটা যোগ্যতা যতটা তুমি পেতে পারো তুমি ততটা আসা করো অতিরিক্ত আশা কখন হতাশায় পরিণত হয়ে যাবে তুমি নিজেই বুঝতে পারবে না। 

স্বপ্ন যদি দেখতে হয় তাহলে সেই স্বপ্ন দেখো যেটাতে তুমি ভবিষ্যতে সাফল্য পেতে পারো সেই স্বপ্নটি পূরণ করো যেটিতে তোমার নিজের চাহিদা থাকবে নিজের যোগ্যতা থাকবে অপরের যোগ্যতা নিয়ে নিজেকে বিচার করো না কারণ তোমার নিজের যোগ্যতাই তোমার কাজে লাগবে। 

তুমি যতটা কাজ করবে তার থেকে অনেক কম চাহিদা রাখবে, অতীতকে ছোট করে দেখোনা অতীতকে অতিরিক্ত মূল্যও দিয়ো না। 

শুধুমাত্র বর্তমানের আয়নায় অতীতকে বিচার করে দেখো। আর সেখানে যে সমস্ত ভুল গুলি তুমি করেছো তার জন্য দুঃখ পেয়ো না। সেই সমস্ত ভুলগুলি কে নিজের মতো করে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যাও। জীবনে অনেক জিনিস অন্যের ভাগে পড়ে এর জন্য দুঃখ করে কোন লাভ নেই কারণ আমার ভাগ্যে যা পড়েছে তা কিন্তু অন্যের ভাগে পরেনি, অর্থাৎ আমার যা যোগ্যতা আছে আমার মধ্যে যে গুন গুলো রয়েছে, আমার যেই কোয়ালিটি রয়েছে তা কিন্তু অন্যের মধ্যে নেই। 


Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *